আঁচিলের চিকিৎসা কি? আঁচিল দূর করার সহজ কিছু উপায়

0
518
আঁচিল

অনেকে মনে করি আঁচিল প্রাকৃতিক ভাবে শরীরে হয়ে থাকে কিন্তু এই ধারণা ভুল। আঁচিল শরীরে তখনই হয় যখন ত্বক ভাইরাস দ্বারা আক্রান্ত হয়। মুখে আঁচিল হলে সমস্যার শেষ থাকে না। বিশেষ করে আঁচিল মেয়েদের বেশি হয়ে থাকে। এর কারণ সর্বদা শরীর জামা কাপরে ঢাকা থাকে আর তখনই আঁচিল সংক্রমণকারী জীবানু খুব অল্প সময়ে ত্বকের উপরীভাগে আঁচিল সৃষ্টি করে। তবে পুরুষের কাঁধে আঁচিল খুব বেশি দেখা যায়।

আঁচিল হলে সাধারনত মানুষ চিন্তা বা চিকিৎসা করে না। কুসংস্কার হিসাবে প্রচলিত আছে যে, আঁচিল হলে মাথার চুল বেঁধে রাখলে আঁচিল সেরে যাবে। কথাটা যদিও কার্যকর তবে এটা আঁচিল হওয়া ক্ষত স্থানে আরও বড় আঁচিল হওয়ার আশংকা থাকে। আর আঁচিল যদি একবার বড় হয়ে যায় তাহলে ক্ষত স্থান থেকে গাছের শিকড়ের ন্যায় রুপ নিতে পারে। তাই আঁচিল হলে অবশ্যই খুব দ্রুত চিকিৎসা নিতে হবে। চলুন জেনে নেয়া যাক।

আঁচিল হলে কি করবেন?

প্রথমেই হোমিও চিকিৎসার কথা উল্লেখ করা হলো। আঁচিল রোগের কোন অ্যালোপ্যাথিক মেডিসিন নেই তাই সাধারনত হোমিও চিকিৎসা নেয়া হয়। আঁচিল দূর করতে হোমিও মেডিসিন অত্যান্ত কার্যকরী। সর্বচ্চ একুশ দিনের মধ্যে হোমিও মেডিসিন সম্পূর্ণ ভাবে আঁচিল দূর করতে সক্ষম। আঁচিল দূর করার জন্য যে মেডিসিন ব্যবহার করা হয়ে থাকে তার নাম সুজা মাদার ও সুজা। সুজা মাদার তুলা দিয়ে আঁচিল আক্রান্ত স্থানে দিনে তিন বার লাগাতে হবে। আর মুখে সেবন যোগ্য হিসাবে সুজা-২০০ থেকে শুরু করে সুজা-১০এম পর্যন্ত সেবন করতে হবে।

প্রাকৃতিক ভাবে আঁচিল দূর করতে পেঁয়াজ অত্যান্ত ফলদায়ক। পেঁয়াজ কুচি করে কেটে একটি প্রাত্রে সারা দিন ঢেকে রেখে দিন। রাতে ঘুমানোর পূর্বে পেঁয়াজ কুচির সাথে সামান্য লবন মিশিয়ে আঁচিল হওয়া ক্ষত স্থানে লাগিয়ে দিন। প্রথম আবস্থাতে হালকা ঝাঁঝ বা জ্বালা করতে পারে তবে এই পদ্ধতি আঁচিল দূর করতে বিশেষ ভূমিকা রাখে।

টি ট্রি অয়েল আঁচিল সম্পূর্ণ নির্মূল করতে সক্ষম। কিছু তুলা পানিতে ভিজিয়ে রাখুন। এবার টি ট্রি অয়েল ভেজা তুলাতে নিয়ে আঁচিল হওয়া ক্ষত স্থানে ঘষতে থাকুন। আপনার আঁচিল হওয়া ক্ষত স্থানে চুলকাতে পারে, তারপরেও আপনি ভালো করে টি ট্রি অয়েল দিয়ে আক্রান্ত স্থান পরিষ্কার করুন। অল্প কিছুদিনের মধ্যে আপনার আঁচিল দূর হবে।

অ্যালোভেরা জেল আঁচিল দূর করার অ্যান্টিসেপটিক থাকে। অ্যালোভেরা পাতা থেকে জেল টুকু ছাড়িয়ে আঁচিল হওয়া আক্রান্ত ম্যাসাজ করুন। ত্বকে জেল শুকিয়ে না যাওয়া পর্যন্ত অপেক্ষা করুন। এরপরে ঠান্ডা পানি দিয়ে ভালো করে ধুয়ে ফেলুন। আপনার আক্রান্ত স্থান থেকে আঁচিল ধীরে ধীরে শুকিয়ে ছোট হয়ে পরিপূর্ণ ভাবে দূর হবে।

বিঃদ্রঃ সকল প্রকার মেডিসিন সেবনের পূর্বে অবশ্যই একজন চিকিৎসকের পরামর্শ গ্রহণ করে সেবন করুন।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here