আইসক্রিম খেলে কি ক্ষতি হয়? আইসক্রিমের অপকারীতা সমূহ

0
138
আইসক্রিম

আইসক্রিম এমন একটি খাবার যা শিশু থেকে শুরু করে বৃদ্ধ পর্যন্ত খেয়ে থাকে। আইসক্রিম বিভিন্ন ফ্লেভারের হয়ে থাকে যা, ভ্যানিলা, চকোলেট, ম্যাংগো, স্ট্রবেরি ইত্যাদি। আইসক্রিম সর্ব প্রথম আবিষ্কার হয় চায়নাতে। ১৯০০ সালের মাঝা মাঝি থেকে আইসক্রিম সারা পৃথিবীতে ছড়িয়ে পড়ে। আইসক্রিম মুখরোচক খাবার তাই সকলেই এর ক্ষতিকর বিষয় চিন্তা করে না। কিন্তু অতিরিক্ত আইসক্রিম খেলে নানা রকম সমস্যা দেখা দেয়। অনেকে মনে করে থাকে আইসক্রিমে কোন সমস্যা সৃষ্টি করে না কিন্তু এটা ১০০% সত্য যে আইসক্রিম ক্ষতিকারক।

১) প্রথমত আইসক্রিম খেলে দাঁতের এনামেল ক্ষয় হয়ে যায় ফলে দাঁত শিরশির করে এবং দাঁত নষ্ট হয়ে যায়। আইসক্রিম ঠান্ডা জাতীয় খাবার তাই যাদের সর্দি কাশি আছে তাদের জন্য আইসক্রিম ক্ষতিকর।

২) আইসক্রিম খেলে শরীরের ওজন ও কোলেষ্টেরল এর মাত্রা বৃদ্ধি পায়। এছাড়াও আইসক্রিমে চিনি থাকার কারনে ডায়াবেটিস রোগীর শরীরে শর্করার পরিমান বেড়ে যায় যা শরীরের জন্য ভালো নয়।

৩) আইসক্রিম হয় ক্যালোরি জাতীয় খাবার তাই যাদের উচ্চ রক্তচাপ আছে তাদের আইসক্রিম খাওয়া উচিৎ নয়।

৪) সাধারনত কম দামের আইসক্রিম গুলো নোংরা পরিবেশে তৈরী করা হয় যা শিশুদের পেটে অসুখের সৃষ্টি করে থাকে।

৫) মানুষের শরীরে ফাইবারের প্রয়োজন আছে কিন্তু আইসক্রিমে কোন প্রকার ফাইবার থাকে না। এছাড়াও অনেকে মনে করেন আইসক্রিম খেলে শরীর ঠান্ডা থাকে কিন্তু মোটেই তা নয় বরং আইসক্রিম খেলে শরীরে মিনারেলের ঘাটতি দেখো দেয়।

৬) আইসক্রিমে বিভিন্ন ধরনের রং ব্যবহার করা হয় যা মানব দেহের জন্য ক্ষতিকর। এছাড়াও এই রং থেকে হতে পারে ক্যান্সার। তাছাড়া যাদের টনসিলের সমস্যা আছে তাদের জন্য আইসক্রিম নিষিদ্ধ।

তবে, আইসক্রিমের অনেক উপকারীতা আছে। সেই উপকারীতা তখনই পাওয়া যাবে যখন আপনি আইসক্রিম পরিমান মত খাবেন। প্রতি সপ্তাহে ১ থেকে ৩ টি আইসক্রিম খাওয়া শরীরের জন্য অনেক উপকারী।

বিঃদ্রঃ নিয়মিত পোষ্ট পেতে আমাদের ফেসবুক পেইজটি লাইক দিয়ে এবং এই পোষ্টটি আপনার ভালো লাগলে শেয়ার ও পোষ্টের নিচে আপনার মতামত দিয়ে সাথেই থাকুন।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here