আনারস খেলে কি হয়, আনারস খাওয়ার উপকারিতা

1
298
আনারস খাওয়ার উপকারীতা

আনারস একটি মৌসুমী ফল। বর্তমানে এই সময়টিতে বিভিন্ন জেলাতে আনারস বাজারে আসতে থাকে। তবে আনারসের দুই ধরনের জাত থাকায় এখন সব ঋতুতে আনারস পাওয়া যায়। রাঙামাটি ও বান্দরবানে এক ধরনের আনারস বারো মাস চাষ করা হয়। যা অনেক জেলাতে পাহাড়ীয়া নামে পরিচিত। আনারস খাওয়া আমাদের শরীরের জন্য অত্যান্ত উপকারী। চলুন জেনে নিই আনারসের কিছু স্বাস্থ্য উপকারিতা-

আনারসের উপকারীতা

১) আনারসে রয়েছে ব্রোমেলিন যা আমাদের হজমশক্তি বৃদ্ধি করতে সাহায্য করে। এছাড়াও আনারস বদহজম দূর করতে ভূমিকা পালন করে।

২) আনারসে প্রচুর প্ররিমানে ভিটামিন এ ও সি, ক্যালসিয়াম, ফসফরাস সহ নানা রকম উপাদান পাওয়া যায় যা আমাদের শরীরে প্রয়োজন। আমাদের শরীরের পুষ্টির অভাব দূর করতে আনারস সহায়তা করে।

৩) আনারসে প্রচুর পরিমানে ক্যালসিয়াম ও ম্যাঙ্গানিজ থাকায় শরীরের হাড় ও দাঁত গঠনে ভুমিকা রাখে। দাঁত শক্তিশালী ও ক্ষয়রোধ করতেও সাহায্য করে আনারস।

৪) আনারস এন্টিবায়েটিক হিসাবে কাজ করে এবং শরীরের রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বৃদ্ধি করে। জ্বর হলে আনারস খেলে জ্বর কমে যায় ও রুচি বর্ধক হিসাবে কাজ করে।

৫) আনারস অতিরিক্ত ওজন কমাতে সাহায্য করে। যাদের অতিরিক্ত মেদ তারা নিয়মিত আনারস খেলে ওজন নিয়ন্ত্রনে থাকে।

৬) আনারসে রয়েছে বেটা ক্যারোটিন। তাই প্রতিদিন আনারস খেলে চোখের রেটিনার ম্যাক্যুলার ডিগ্রেডেশন রোগ হওয়া থেকে সুস্থ রাখে।

৭) আনারস একটি আঁশ বা ফাইবার যুক্ত একটি ফল। তাই যাদের কোষ্ঠকাঠিণ্যতা আছে তারা আনরস নিয়মিত খেলে কোষ্ঠকাঠিণ্যতা দূর হবে।

উপরোক্ত বিষয় ছাড়াও আনারসে নানা রকম উপকারীতা রয়েছে। উল্লেখ্য থাকে যে যারা মাথা ব্যথাতে ভুগে থাকেন তাদের আনারস খেলে মাথা ব্যথা দূর হবে। তবে সাবধান, আনারস ও দুধ কোন সময় একসাথে খাবেন না। এটা মূলত এক ধরনের বিষ তৈরী হয়।

বিঃদ্রঃ নিয়মিত পোষ্ট পেতে আমাদের ফেসবুক পেইজটি লাইক দিয়ে আমাদের সাথেই থাকুন এবং সেই সাথে এই পোষ্টটি আপনার ভালো লাগলে শেয়ার করুন।

1 COMMENT

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here