আপেল খেলে কি হয়? আপেলের স্বাস্থ্য উপকারিতা

0
1118
আপেলের স্বাস্থ্য উপকারিতা

আপেল সারা বিশ্বে একটি অতি পরিচিত ফল। আর এর আপেলের স্বাস্থ্য উপকারিতা আনেক। গ্রাম অঞ্চল থেকে শুরু করে শহর পর্যন্ত আপেলের প্রচলন। খিদে পেলে আমরা সবাই ভাজা পোড়া খেয়ে থাকি কিন্তু এটা ঠিক নয়। ভাজা পোড়া আমাদের স্বাস্থ্যর জন্য অত্যান্ত ক্ষতিকর। খিদে পেলে সর্বদা চেষ্টা করুন যে কোন ফল খাবার। তবে এর মধ্যে আপেল অন্যতম। আপেলে যথেষ্ট পরিমান পুষ্টিগুন রয়েছে। সাদা আপেলের থেকে লাল আপেলে অ্যান্টিঅক্সিডেন্টের পরিমান বেশি থাকে। চলুন আপলের স্বাস্থ্য উপকারীতা সম্পর্কে জেনে নেয়া যাক।

আপেলে পুষ্টি উপাদানের পরিমান

প্রতি ১০০ গ্রাম আপেলে বিদ্যমান রয়েছে খাদ্যশক্তি ৫২ কিলোক্যালরি, শর্করা ১৩.৮১ গ্রাম, আমিষ ০.২৬ গ্রাম, চর্বি ০.১৭ গ্রাম, ভিটামিন এ ৫৪ আইইউ, ফাইবার ২.৪ গ্রাম, ভিটামিন সি ৪.৬ মিলিগ্রাম, ভিটামিন ই ০.১৮ মিলিগ্রাম, পটাশিয়াম ১০৭ মিলিগ্রাম, ম্যাগনেসিয়াম ৫ মিলিগ্রাম, ফসফরাস ১১ মিলিগ্রাম, জিংক ০.০৪ মিলিগ্রাম, ক্যালসিয়াম ৬ মিলিগ্রাম, সোডিয়াম ১ মিলিগ্রাম, কোলেস্টেরল ০ মিলিগ্রাম এবং লৌহ ০.১২ মিলিগ্রাম।

আপেলের স্বাস্থ্য উপকারীতা

১। আপেলের খোসার মধ্যে যে ফেনলিক উপাদান থাকে এবং আপেলে যতেষ্ট পরিমানে ফাইবার রয়েছে ফলে শরীরের কোলেষ্টেরল এর মাত্রা নিয়ন্ত্রণ রাখতে সাহায্য করে।

২। ডায়াবেটিস রোগীদের উচ্চরক্তচাপ নিয়ন্ত্রণ করে এবং রক্ত নালী পরিষ্কার রেখে হার্ট অ্যাটাক ঝুঁকি কমাতে সাহায্য করে এবং বহুমত্র রোগ দূর করে।

৩। আপেল খেলে মুখে প্রচুর লালা উৎপন্ন হয় ফলে দাঁত ও মাড়ির কোনা থেকে ক্ষতিকারক ব্যাকটেরিয়া বেড়িয়ে আসে। এতে দাঁত ভালো থাকে এবং দাঁত মজবুত হয়।

৪। আপেল একটি ডায়রিয়া ও আমাশয় প্রতিরোধক। যাদের ডায়রিয়া ও আমাশয় বেশি হয়ে থাকে তারা নিয়মিত আপেল খেলে পেটের বর্জ্য দূর হয়ে যাবে এবং ডায়রিয়া আমাশয় দূর হবে।

৫। আপেলে প্রচুর পরিমানে অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট আছে যা আমাদের শরীরে রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বৃদ্ধি করতে ভূমিকা রাখে। আপেলের অ্যান্টিঅক্সিডেন্টকে মুলত “কুয়েরসেটিন” নামে অভিহিত করা হয়।

৬। আপেলের স্বাস্থ্য উপকারিতা আমাদের শরীরের ত্বক সুন্দর ও চর্মরোগ দূর করতে সাহায্য করে। এছাড়াও নিয়মিত আপেল খেলে হাত ও পায়ের নখ সাদা ও রোগমুক্ত সহ শক্ত হয়।

৭। আপেলে ফ্লেভনয়েড ও পলিফেনল নামক উপাদান আছে যা আমাদের শরীরের ডি.এন.এ এর ক্ষতিরোধ করে এবং ক্যান্সার সহ বিভিন্ন রোগ দূর করে।

৮। আমরা সারা দিনে যে খাবার খেয়ে থাকি তাতে কিছু পরিমান হলেও ক্ষতিকারক পদার্থ থাকে যা সম্পূর্ণ ভাবে দূর করতে একটি আপেল যথেষ্ট। আপেল ১০০ ভাগ লিবারকে সুস্থ্য ও কার্যক্ষমতা বৃদ্ধি করে থাকে।

৯। অনেকে শরীরের অতিরিক্ত ওজন ও মেদ কমানোর চেষ্টা করে। তাদের জন্য আপেল একটি উৎকৃষ্ট ফল। আপেলে বিদ্যমান ফাইবার পেটের ক্ষুধা চাহিদা পূরণ করে ফলে অতিরিক্ত খাবার খেতে হয় না। এতে আপনার শরীরের অতিরিক্ত ওজন কমে যাবে।

১০। অনেক সময় বদহজমের ফলে টক ঢেকুর উঠে থাকে অনেকের। তাই বদহজম হলে একটি লাল আপেল একটু লবন মিশিয়ে চিবিয়ে খেলে টক ঢেকুর উঠা বন্ধ হবে।

পরিশেষে, একটি পেয়েরা সমান ৮ টি আপেল কথাটা সত্য। তাই বলে আপনি আপেল খাবেন না এমন কোন কথা নেই। আপেল আমাদের শরীর মনকে সুস্থ্য রাখতে একটি অ্যন্টিবায়েটিকের ন্যায় কাজ করে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here