ছারপোকা কামড়ালে কি হয়? ছারপোকা দূর করার উপায়

0
1348
ছারপোকা কামড়ালে কি হয়

ছারপোকা একটি অতি পরিচিত প্রাণী।ছারপোকা কামড়ালে কি হয় জানতে হলে পুরো পোস্টটি পড়ুন। এর আবাস স্থল মানুষের ব্যবহার্য জিনিস পত্রে। ছারপোকা এমনই মারাত্বক যে একবার ছড়িয়ে পড়লে তা দূর করা সম্ভব হয় না। আবার ছারপোকা দূর করলেও এর ডিম থেকে যায় যা থেকে অতি দ্রুত বংশ বিস্তার করতে পারে। বিশেষ করে ছারপোকা ট্রেনে, বাসে, বাড়ীর বিছানাতে ও সোফা সেটে বেশি দেখা যায়। শহর অঞ্চলে ছারপোকা বেশি জন্মগ্রহন করে এবং বিস্তার লাভ করে।

ছারপোকাকে অনেকে রক্তচোষা বলে আক্ষায়িত করে। দিনের বেলা এদের দেখা যায় না। কিন্তু রাতে এরা বেশ সচল, আমরা যখন ঘুমিয়ে থাকি তখন ছারপোকা আমাদের শরীর থেকে রক্ত চুষে নেয়। ছারপোকা অনেক টা মশার মত আচারন করে তবে তা চুপি চুপি। এক স্থান থেকে রক্ত চুষে অন্য প্রান্ত্রে খুব দ্রুত চলে যেতে সক্ষম এই ছারপোকা।

ছারপোকা কামড়ালে কি হয়?

রাতের অন্ধকারে ছারপোকা আমাদের রক্ত চুষে থাকে ফলে অনেকের শরীরে রক্ত শূণ্যতা দেখা দিতে পারে। আমরা যখন ঘুমিয়ে থাকি তখন ছারপোকা আমাদের হাতের আঙ্গুলের মাঝে চামড়া ফুটো করে রক্ত পান করে। এছাড়াও পায়ের পাতায়, পায়ের আঙ্গুলের মাঝে, যৌনাঙ্গের আশে পাশে, বগলে, কাধে। এই সব জায়গাতে আস্তে আস্তে ইনফিকশন সৃষ্টি হয়ে।

ছারপোকার কামড়ে অনেকের অ্যালাজির্ক সমস্যা হয়ে থাকে। তাছাড়া ছারপোকার কামড়ে আক্রান্ত স্থানে ঘা হতে পারে, চর্মরোগ সহ নানা রকম স্কিন সমস্যা হয়। এমনও হতে পারে যে, হাতের বা পায়ের আঙ্গুলের মাঝে ঘা হয়ে চামড়া উঠে যেতে পারে।

ছারপোকা থেকে মুক্তির উপায়

১) আপনার বাসার আসবাবপত্র সহ চাদর, বিছানা পত্র, জামা কাপড় ভালো সোডা বা ডিটারজেন্ট পাউডার দিয়ে ধুয়ে রোদে শুকিয়ে নিন।

২) ঘাট ও সোফা সেটের কোনা গুলোতে ন্যাপথলিন পানিতে মিশিয়ে ছিটিয়ে দিন। এছাড়া ছারপোকা নিধন করার বিষ পাওয়া যায় সেগুলো পানিতে মিশিয়ে স্প্রে করতে পারেন।

৩) যে জায়গাতে ছারপোকা বাসা বেধেছে সেই জায়গা কিছু দিনের জন্য ত্যাগ করুন এবং প্রতিদিন আলো বাতাস প্রবেশ করতে দিন। যদি সম্ভব হয় তাহলে গরম পানিতে লবন মিশিয়ে ভালো ভাবে ছারপোকার বাসা পরিষ্কার করুন।

৪) ছাড়পোকা দূর করতে নিম পাতা বেশ ভালো কাজ করে। তাই নিম পাতা বা নিম পাতার গুড়ো ছড়িয়ে দিন যে জায়গাতে ছারপোকা আছে।

৫) ছারপোকা দ্বারা কামড়ানো আক্রান্ত স্থানে গরম পানি দিয়ে ভালো ভাবে পরিষ্কার করে ষ্টরয়েড ক্রিম ব্যবহার করতে পারেন। এতে আপনার শরীরে আক্রান্ত স্থান থেকে জীবানু বা ব্যকটেরিয়া দূর হবে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here