ডাব খাওয়ার উপকারিতা

0
432

যে কোন রোগীর পথ্য হিসাবে ডাব খুবই গুরুত্বপূর্ণ একটি পানিয়। ডাবের পানিতে আছে পটাশিয়াম, ম্যাগনেশিয়াম, আয়রন, প্রোটিন, সোডিয়াম, ক্লোরাইড জাতীয় পদার্থ। এসব উপাদান শরীর সুস্থ্যতার পাশাপাশি ত্বক, ঠোঁট, চুল, নখ ও দাঁত সুন্দর রাখতে ভুমিকা পালন করে। ডাব বাংলাদেশের যে কোন স্থানে পাওয়া যায়। একটি ডাব সাধারনত ২০ টাকা থেকে ৫০ টাকার মধ্যে পাওয়া যায়। ডাবের যে পুষ্টিগুন আছে তা খালি চোখে পরীক্ষা করা সম্ভব না। শিশু থেকে শুরু করে বৃদ্ধদের পর্যন্ত সবার জন্য ডাব একটি উৎকৃষ্ট ফল। চলুন ডাব খেলে কি হয় তা জেনে নেয়া যাক।

ডাব খেলে কি হয়?

১। ডাবের পানিতে ভিটামিন ‘সি’ ও ‘এ’ পাবেন।
২। ডাব ত্বক, চুল ও নখ ভালো রাখে এবং বয়সের ছাপ দূর করে।
৩। ডাবের পানি দেহের ভাইরাস, ব্যাকটেরিয়া ও ছত্রাক ধ্বংশ করে।
৪। ডাবের পানি ত্বকের ব্রণের দাগসহ যেকোন দাগ দূর করে।
৫। দাঁতের মাড়িকে মজবুত করে, রক্তপড়া বন্ধ করে, সেইসঙ্গে দাঁতের উজ্জ্বলতা বাড়িয়ে দেয়।
৬। ডাব নখের ভঙ্গুরতা থেকে রক্ষা করে এবং শীতকালে ঠোঁটের চামড়া ওঠে থেকে রক্ষা করে।
৭। ডাবে শর্করা থাকার কারনে ডায়বেটিস রোগীদের জন্য উপকারী এবং কিডনীর অম্লত্ব ঠিক রাখে।

পরিশেষে, উপরোক্ত বিষয় গুলো ছাড়াও ডাব অনিয়মিত মাসিক প্রতিরোধ করতে কার্যকরী। তাই অন্তত সপ্তাহে ২ টি ডাব নিয়মিত খাওয়া আমাদের উচিৎ। মনে রাখবেন পৃথিবীতে যা কিছু ফলমূল সৃষ্টি হয়েছে তার সবগুলো মানব জাতীর জন্য উপকারী।

বিঃদ্রঃ নিয়মিত পোষ্ট পেতে আমাদের ফেসবুক পেইজটি লাইক দিয়ে আমাদের সাথেই থাকুন সেই সাথে এই পোষ্টটি আপনার ভালো লাগলে শেয়ার করুন।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here