তোতলামির চিকিৎসা, তোতলামি নিরাময়ের উপায়

0
141
তোতলামির চিকিৎসা

শুধুমাত্র বাংলাদেশ নয়, সারা বিশ্বে হাজারো মানুষ আছে যারা তোতলামি করে কথা বলে। এটা নিয়ে আমরা অনেকে হাসি টাট্টা করে থাকি কিন্তু এটা একটা সাধারন বিষয়। কথা বলার প্রতিবন্ধকতা এক ধরনের শারীরিক ব্যাধি আর এই কারনে মানুষ একই কথা বার বার বলতে থাকে বা কথাটি পরিষ্কার ভাবে উচ্চারন করতে পারে না। তোতলামির সমস্যা নিয়ে হতাশা গ্রস্থ হওয়ার কিছু নেই, পৃথিবীর অনেক বিখ্যাত ব্যক্তির তোতলামির সমস্যা ছিল যেমন- বিজ্ঞানী আইজ্যাক নিউটন, দার্শনিক অ্যারিস্টটলের এই সমস্যা ছিল। আসলে তোতলামি একটি জিনগত সমস্যা। আসুন তোতলামির বিষয়ে আরও একটু বিস্তারিত জানা যাকঃ-

কারনঃ
পরিবারের কারও তোতলামির রোগ বা সমস্যা থাকলে যে তাদের সন্তানদের হবে এমন কোন কথা নেই। আবার বংশগত ভাবেও অনেক সময় হয়ে থাকে, মুলত জন্ম গ্রহন বা বাচ্চা গর্ভে থাকা অবস্থাতে ব্রেনের কিছু নার্ভ ভেঙে গেলে এমন টা হতে পারে। তাই বাচ্চাটিকে স্বাভাবিক জন্ম দিতে গর্ভবতী মায়েদের অনেক করনীয় থাকে যা বাংলাদেশের মায়েরা করেন না। অনেক সময় সন্তানের হাতের ডিরেকশন উল্টা হয়। অনেকে ডান হাত ব্যবহার না করে বাম হাতে কাজ করে। সে ক্ষেত্রে যদি ছোটবেলা চাপ দিয়ে বা রাগা রাগি করে হাতের ব্যবহার পরিবর্তন করার চেষ্টা করা হয় তবে তোতলামি সমস্যা হতে পারে। তোতলামি নিউরোজেনিক কারণেও হতে পারে যেমন ছোটবেলায় যদি বাচ্চা মাথায় ও পিঠে গুরুতর আঘাত পায় তবে কথা বলার সমস্যা দেখা দিতে পারে। মেয়েদের তুলনায় ছেলেদের মধ্যে বেশি তোতলামি দেখা যায়। যদি কারও তোতলামি ১০ থেকে ১৫ বছরের বেশি সময় ধরে থাকে তবে অবশ্যই চিকিৎসকদের এ বিষয়ে জানাতে হবে। একটা কথা মনে রাখবেন, তোতলামির সমস্যা একেবারে না নিয়ন্ত্রণ করা যায় না।

প্রতিকারঃ
প্রাকৃতিক চিকিৎসাতে যষ্ঠি মধু বা যষ্ঠি কাঠের সরবত পান করলে তোতলামি থেকে মুক্তি পাওয়া সম্ভব। তবে এক টানা ১ বছর খেতে হবে যদিও এই এক বছরে আপনার তোতলামি সেরে যায়। এছাড়াও তোতলামি সারানোর একমাত্র চিকিৎসা আছে “থেরাপি” যা সঠিক সময়ে প্রয়োগ করলে তোতলামি সেরে যায়। থেরাপির তিনটি ভাগ রয়েছে যা ইন্ডিভিজুয়াল থেরাপি, গ্রুপ থেরাপি এবং কাউন্সেলিং থেরাপি। এর মধ্যে যে কোন একটি করলেই হবে তবে খরচ টা জেনে নিবেন।

পরিহারঃ
অনেকে তোতলামি দূর করার জন্য পয়সা বা কয়েন মুখের ভিতরে রেখে দেন এটা সম্পূর্ণ ভুল ধারনা। এছাড়াও অনেক হাতুড়ি ডাক্তার বলে থাকেন অপারেশন করতে হবে কিন্তু ভালো করে মনে রাখবেন, কোনও প্রকার অপারেশন করেই তোতলামি সারানো সম্ভব নয়।

বিঃদ্রঃ নিয়মিত পোষ্ট পেতে আমাদের ফেসবুক পেইজটি লাইক দিয়ে আমাদের সাথেই থাকুন সেই সাথে এই পোষ্টটি আপনার ভালো লাগলে শেয়ার করুন।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here