দারুচিনির গুনাগুণ, মধু ও দারুচিনি খাওয়ার উপকারীতা

0
115
মধু ও দারুচিনি খাওয়ার উপকার

দারুচিনি একটি অতি পরিচিত মসলা যা প্রতিদিন খাবার রান্নাতে ব্যবহার করা হয়। দারুচিনি একটি সুগন্ধিযুক্ত ও একটু ঝাঁঝযুক্ত। কিন্তু এই দারুচিনির উপকারীতা বা গুনাগুণ সম্পর্কে আমরা কেউ তেমন জানি না। অথচ সামান্য এই মসলা টি হাজারো রোগের জন্য কার্যকরী। মধু ও দারুচিনি একসঙ্গে খেলে শরীরের মিনারেল, ভিটামিনের ঘাটতি দূর হবে। দারুচিনি মুলত এক ধরনের গাছের ছাল। যা গাছ থেকে ছাড়ানোর পরে রোদে ভালো করে শুকিয়ে তারপের বাজার জাত করা হয় দারুচিনিকে।

মধু ও দারুচিনি খাওয়ার উপকারীতা

রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতাঃ নিয়মিত রাতে বা সকালে খালি পেটে মধু ও দারুচিনি একত্রে মিশ্রিত করে খেলে আপনার শরীরের কিছু কোষ ও উপাদান বৃদ্ধি পাবে ফলে আপনার শরীরের যে কোন রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বৃদ্ধি পাবে।

হার্ট সুস্থ্য রাখেঃ মধু ও দারুচিনি কোলেস্টেরল বা এল.ডি.এল এর মাত্রা কমিয়ে দেয়। প্রতিদিন মধু ও দারুচিনি খেলে আপনার হার্ট থাকবে সুস্থ্য ও সবল। এছাড়াও আপনার হার্ট দূর্বলতা ও হার্টবিট সমস্যা গুলো দূর হবে।

মুখে লালা তৈরী করেঃ দারুচিনিতে প্রচুর পরিমানে অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট আছে এবং ব্যকটেরিয়া নাশক উপাদান আছে যা আপনার মুখের ব্যকটেরিয়া ধ্বংস করবে এবং শরীরে অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট সরবরাহ করবে। ফলে আপনার মুখের লালা পরিষ্কার ও ব্যকটেরিয়া মুক্ত থাকবে।

বদহজম দূর করেঃ মধু ও দারুচিনির একটা বড় গুণ বদহজম দূর করা। নিয়ম মত মধু ও দারুচিনি মিশিয়ে পানির সাথে শরবত করে খেলে পেটের ষ্টমাকে থাকা গ্যাস বেরিয়ে যায়। তাছাড়া যাদের বদহজমের সমস্যা আছে তাদের বদ হজম দূর করবে মধু ও দারুচিনি।

ক্যান্সার রোগ প্রতিরোধঃ মধুতে থাকা ফাইটোনিউট্রিয়েন্ট শরীর থেকে টক্সিক উপাদান কে বের করে দেয় ফলে ক্যান্সার সেলের জন্ম নেওয়ার আশঙ্কা কম থাকে। টিউমারের ঝুঁকি কমাতে দারুচিনি বিশেষ ভূমিকা পালন করে।

নিঃশ্বাসে দূর্গন্ধঃ অনেকে ভালো পেষ্ট ব্যবহার করেও নিঃশ্বাসে দূর্গন্ধ দূর করতে পারে না। তাই সজিব তাজা নিঃশ্বাস পেতে রাতে ১ চা চামচ মধুর সাথে কিছু পরিমান দারুচিনি পানির সাথে মিশিয়ে ফুটিয়ে নিন। এর পরে ফুটন্ত পানি দিয়ে সকালে ও রাতে মাউথ ওয়াশের ন্যায় কুলি করুন। আপনার নিঃশ্বাসের দূর্গন্ধ দূর হবে।

ঠান্ডা ও কাশিঃ ঠান্ডা ও কাশি হলে একটানা তিন দিন মধু ও দারুচিনি খেলে ঠান্ডা জনিত সকল সমস্যা দূর হবে এবং গলায় খুসখুস কাশিও দূর করে সাইনাসের সমস্যা রোধ প্রতিরোধ করবে।

বিঃদ্রঃ নিয়মিত পোষ্ট পেতে আমাদের ফেসবুক পেইজটি লাইক দিয়ে আমাদের সাথেই থাকুন এবং সেই সাথে এই পোষ্টটি আপনার ভালো লাগলে শেয়ার করুন।


LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here