পেনিসে মধু মাখার উপকারিতা

0
2625
পেনিসে মধু মাখার উপকারিতা

মধু সকল প্রকার রোগের বিরুদ্ধে বেশ ভালো কাজ দেয়। মধু বাংলাদেশের সর্বত্র পাওয়া যায় তবে খাঁটি মধু পাওয়া অনেক টা কঠিন কাজ। সুন্দরবন এলাকাতে খাঁটি মধু পাওয়া যায়। খাঁটি মধু পুরুষের পেসিনের জন্য অত্যান্ত উপকারী। একজন পুরুষ নিয়মিত পেনিসে মধু ব্যবহার করলে পেনিস সুস্থ্য, শক্ত ও মোটা হয়। আসুন বিস্তারিত জেনে নেয়া যাকঃ

পেনিসে মধু মাখার উপকারীতাঃ

অনেকে নিয়মিত হস্তমৈথুন করে থাকেন ফলে পেনিস হয়ে যায় নিস্তেজ, দূর্বল, বাঁকা সহ দ্রুত বীর্যপাত হয়ে থাকে। আর হস্তমৈথুন নিয়ন্ত্রণ করে প্রতিদিন পেনিসে মধু মাখলে পেনিস নতুন জীবন ফিরে পায়। আসলে পেনিস মোটা করা কিংবা লম্বা করার মত কোনো ব্যাবস্থা বা মেডিসিন এখনো পর্যন্ত তৈরি হয়নি। তবে মধু পেনিস কে মোটা ও লম্বা করতে সাহায্য করে। এছাড়াও মধু একটি শক্তিশালী খাবার হিসাবে চিহ্নিত করা হয়। উদাহরন সরূপঃ গ্রিক অ্যাথলেটরা অলিম্পিকে অংশ গ্রহণের আগে প্রচুর পরিমাণ মধু সেবন করত শক্তি বাড়ানোর জন্য।

মধুতে প্রাকৃতিক শক্তি আছে তাই পুরাতন মধু পেনিসে মাখলে সহজে বীর্যপাত হয় না এবং লিঙ্গ অনেক বেশি শক্ত হয়। অনেকে নানা রকম ভেষজ সহ মেডিসিন সেবন বা ব্যবহার করে থাকে। কিন্তু আপনি জানেন কি সেক্স বিষয়ক যত মেডিসিন বিজ্ঞাপন প্রচারণার মাধ্যমে বিক্রয় করা হয় তার সবগুলো ভূয়া বা ক্ষতিকারক।

অনেক তরুন বিয়ে করতে ভয় পায় এবং বলেন যে, আমার পেনিস শক্ত হয় না, দ্রুত বীর্যপাত হয়, আবার অনেকে বলেন যে, আমার পেনিসের আগা মোটা গোঁড়া চিকন। এই সব সমস্যা যদি আপনার মাঝে থেকে থাকে তাহলে আপনি নিয়মিত পেনিসে খাঁটি মধু মাখুন। এক মাস নিয়মিত আপনি মধু মাখলে আপনার পেনিস শক্ত, মোটা ও দ্রুত বীর্যপাত সহ গনোরিয়া, সিফিলিস রোগ দূর হবে ১০০%। কথাটা বিশ্বাস না হলে আপনি প্রয়োগ করে দেখতে পারেন।

উপরোক্ত বিষয়গুলো মাথায় ভালো করে রাখুন এবং হস্তমৈথুন অভ্যাস থাকলে পুরোপুরি ছেড়ে দিন। আপনি যদি হস্তমৈথুন ছাড়তে না পরেন তাহলে মধু আপনি বছরের পর বছর মাখলেও বিন্দু পরিমান উপকার হবে না আপনার পেনিসে। পেসিনে মধু মাখার পাশাপাশি মধু খেতে পারেন নিয়মিত ভাবে। একটা বিষয় ভালো ভাবে লক্ষ্য রাখবেন, পেনিসে মধু মাখলে পেনিস অনেক গরম হয়ে যায় এবং সেক্স বৃদ্ধি পায় ফলে বীর্যপাত করার ইচ্ছা জাগে। তাই বীর্যপাত করা থেকে সাবধান থাকুন। তবে স্ত্রী থাকলে যৌন মিলন করতে পারেন এতে কোন সমস্যা হবে না।

বিঃদ্রঃ নিয়মিত পোষ্ট পেতে আমাদের ফেসবুক পেইজটি লাইক দিয়ে আমাদের সাথেই থাকুন সেই সাথে এই পোষ্টটি আপনার ভালো লাগলে শেয়ার করুন।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here