ফ্লোকোনাজল ক্যাপসুল, ফ্লোকোনাজল এর কাজ কি

0
113
ফ্লুকোনাজল এর কাজ কি

ফ্লোকোনাজল ক্যাপসুল অ্যান্টিবায়েটিক হিসাবে ব্যবহৃত হয় ছত্রাক নাশকের ক্ষেত্রে। ফ্লোকোনাজল ৫০ মিগ্রা, ১৫০ মিগ্রা ও ২০০ মিগ্রা ক্যাপসুল আকারে পাওয়া যায়। এই ঔষধ টি খুবই শক্তিশালী এবং খুব দ্রুত কাজ করে শরীরের যে কোন ছত্রাক, ব্যাকটেরিয়া দ্বারা ক্ষত চর্মরোগের বিরুদ্ধে।

কখন ফ্লোকোনাজল ক্যাপসু সেবন করবেন?

ভেজাইনাল ক্যানডিডিয়াসিস, মিউকোজাল ক্যানডিডিয়াসিস সহ গলা, পিঠে, পেটে, নাভীতে, যৌনাঙ্গে, হাতে, হাতের আঙ্গুলে, পায়ে এবং পায়ের পাতায় কোন প্রকার চর্মরোগ দেখা দিলে এবং ছত্রাক বা ব্যাকটেরিয়া দ্বা আক্রান্ত হলে সেই সাথে প্রচুর চুলকানী হলে ফ্লোকোনাজল ক্যাপসুল সেবন করতে হবে। এছাড়া অধিকতর চুলকানী, অ্যালার্জির প্রভাব দেখা দিলে ডেসলর ট্যাবলেট টি ফ্লোকোনাজল এর সাথে সেবন করা যেতে পারে।

ফ্লোকোনাজল সেবন করার নিয়মাবলীঃ

সাধারনত প্রতিদিন ২ টি করে ক্যাপসুল সকালে ১টি এবং রাতে ১টি সেবন যোগ্য তবে রোগের পরিমান নির্ণয় করে ফ্লোকোনাজল সেবন করা সবচেয়ে নিরাপদ ও উত্তম। আর অবশ্যয় একজন ভালো চর্মরোগ বা মেডিসিন ডাক্তারের পরামর্শ অনুযায়ী ফ্লোকোনাজল সেবন করবেন।

পার্শ্বপ্রতিক্রিয়াঃ

বমি বমি ভাব হতে পারে, পাকস্থলীর অস্বাচ্ছন্দতা অনুভূত, ডায়রিয়ার আশংকা দেখা দিতে পারে, পাকস্থলীতে বাতাস জমতে পারে, মাঝে মাঝে লিভার এনজাইমের অস্বাভাবিকতা, খুম কম ক্ষেত্রে ফুসকুড়ি, এনজিওইডিমা এবং এনাফাইলেক্সিস দেখা দিতে পারে। এছাড়াও মুখ, ঠোঁট, চোখের পাতা, জিহ্বা, হাত ও পায়ে ফুলে যেতে পারে।

কখন ফ্লোকোনাজল সেবন করা থেকে বিরত থাকবেন?

যদি আপনার ক্ষত স্থানের কোন পরিবর্তন না আছে এবং চুলকানীর পরিমান ক্রমাগত বৃদ্ধি পায় তবে ফ্লোকোনাজল সেবন করা বন্ধ করে চিকিৎসকের পরামর্শ গ্রহণ করুন। ফ্লোকোনাজল সেবনের ফলে যদি তন্দ্রাচ্ছন্নতা এবং শ্বাসকষ্ট দেখা দেয় তাহলে ফ্লোকোনাজল সেবন করা থেকে বিরত থাকুন।

এছাড়া ফ্লোকোনাজল তাদের জন্য সম্পূর্ণ নিষেধ যারা ধুমপান, মদ্যপান করে থাকেন। নেশাগ্রস্থ্য কোন দ্রব্যাদির সাথে ফ্লোকোনাজল মিথষ্ক্রিয়া হতে পারে।

ফ্লোকোনাজল সেবনের সময় কোন খাবারে নিষেধ নেই। তবে অ্যালার্জিক জাতীয় খাবার থেকে বিরত থাকা শ্রেয়। যেমন, পুঁইশাক, কলাই ডাল, গরুর মাংস, বেঁগুন, চিংড়ী ও ইলিশ। এই খাবার গুলো শরীরে প্রচুর অ্যালার্জির প্রভাব ফেলতে পারে।

বিঃদ্রঃ নিয়মিত পোষ্ট পেতে আমাদের ফেসবুক পেইজটি লাইক দিয়ে আমাদের সাথেই থাকুন সেই সাথে এই পোষ্টটি আপনার ভালো লাগলে শেয়ার করুন।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here