ভার্জিন মেয়ে চিনবেন যেভাবে বা বুঝবেন যে সে একজন কুমারী মেয়ে

0
142
ভার্জিন মেয়ে
ভার্জিন মেয়ে

ভার্জিন মেয়ে আসলে এখন আর চেনার বা বুঝবার ক্ষমতা নেই, তার পরেও কিছু কথা থেকে যায়। আমাদের বাংলাদেশের খুব কমন প্রশ্ন ভার্জিন আছে তো? আসুন সংক্ষেপে কিছু জেনে নেয়া যাক।

ভার্জিন হবার লক্ষনঃ
১) মেয়েদের ল্যাবিয়া মেজরা অর্থাৎ বাইরের পাপড়ি প্রায় সম্পূর্ণ ভাবে একসাথে লেগে থাকবে এবং যোনিমুখ দেখা যাবে না।
২) ভিতরের পাপড়িও সম্পূর্ণ ভাবে বন্ধ থাকবে এবং ল্যাবিয়া মেজরা দিয়ে ঢাকা থাকবে পুরো অংশটা।
৩) হাইমেন বলতে সতিচ্ছেদ অক্ষত থাকবে, তারপরেও এটা অনেক কারনেই ছিঁড়ে বা ফেঁটে যেতে পারে।
৪) ল্যাবিয়া মাইনরার নিচের প্রান্ত একত্রে থাকবে, সেই সাথে পিং কালার ভাব থাকবে।
৫) ক্লিটরিস খুব ছোট এবং এটার আবরণকারী চামড়াও খুব পাতলা হবে।
৬) যোনিপথ সরু ও ভিতরের ভাঁজগুলি কম মসৃণ হবে সেই সাথে ভাঁজগুলো অনেক বেশি থাকবে।

স্তন দ্বারা চেনার লক্ষণঃ
১) স্তন ছোট বা মাঝারী হতে পারে।
২) চ্যাপ্টা আকারে হবে, গোলাকার নয়।
৩) খুবই দৃঢ় হবে, তুলতুলে নরম বা কোমল নয়।
৪) স্তনের চারপাশে গাঢ় অংশ থাকবে যার রঙ গোলাপি বা পিং থেকে বাদামী রঙ হবে।
৫) নিপল বা বোঁটার আকৃতি ছোট ও শক্ত হবে।

উপরোক্ত বিষয়গুলো শুধুমাত্র জেনে রাখার জন্য তুলে ধরা হলো। নেগেটিভ কোন মন্তবের জন্য নয়।

বিঃদ্রঃ নিয়মিত পোষ্ট পেতে আমাদের ফেসবুক পেইজটি লাইক দিয়ে আমাদের সাথেই থাকুন সেই সাথে এই পোষ্টটি আপনার ভালো লাগলে শেয়ার করুন।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here