ছোট স্তন বড় করার উপায়, কি করলে স্তন বড় হয়?

0
855
স্তন

ছোট স্তন বড় করার বিষয়টি খুবই কমন একটা ব্যাপার। অধিকাংশ মেয়েরা তাদের স্তনের আকার, সাইজ বড় করার জন্য নানা রকমের চিন্তা ভাবনা করে থাকে। হাজারো রকম প্রশ্ন নারীর মনে জাগতে থাকে, কেমন করে স্তন বড় করবো, কি ব্যবহার করবো, আমার বন্ধুর স্তন বড় কিন্তু আমার স্তন ছোট কেন এই রকম হাজারো প্রশ্ন। প্রশ্নগুলোর উত্তর সবগুলোই আপনার কাছে আছে। স্তন বড় করতে হলে সবার আগে মানসিক প্রস্তুতি নিতে হবে। অনেকেই আবার সংকোচ বোধ করে যে স্তন বড় হলে পরিবার ও আশে পাশের মানুষ গুলো নানা রকম নেগেটিভ মন্তব্য করে বসবে। হ্যা কথা টা আসলেই সত্য কারন আমরা এমন একটা পরিবেশে জীবন যাপন করি যে পান থেকে চুন খসলে নানা ধরনের কথা শুনতে হয়। তবে প্রতিটা নারীর স্তন কিছুটা বড় হওয়া উচিৎ এতে আপনার যৌন জীবন যেমন সুখের হবে তেমন আপনার সন্তানের জন্য দুগ্ধদান করাটাও অনেক সহজ হবে।

স্তন বড় করার উপায় সমূহ

১) আপনি যদি বিবাহিত হয়ে থাকেন তবে নিয়মিত সেক্স করুন এবং আপনার সঙ্গীনীকে বলুন পিছন সাইড থেকে দুই হাতে আপনার স্তন ম্যাসেজ করতে। তবে ম্যাসেজ টা যেন বেশি চাপ প্রয়োগ না হয়। নিয়মিত স্তন ম্যাসেজ করলে স্তনে রক্তচাপ বৃদ্ধি পাবে যার ফলে স্তনের কোষ গুলো ধীরে ধীরে বড় হতে থাকবে।

২) যারা অবিবাহিত আছেন তারা প্রতিদিন ঘুমানোর পূর্বে দুই হাতের তালুতে মধু নিয়ে স্তন ম্যাসেজ করুন। খেয়াল রাখবেন স্তনের নিচের অংশ থেকে ম্যাসেজ শুরু করবেন। প্রতিদিন আপনি ১৫ থেকে ২০ মিনিট মধু দিয়ে স্তন ম্যাসেজ করলে আপনার স্তন প্রচুর গরম হবে এবং স্তন ঝুলে থাকলে তা গোল ও কিছুটা শক্ত হবে। এই ম্যাসেজটি নিয়মিত করলে আপনার স্তনের আকার বৃদ্ধি পাবে।

৩) সর্বদা সঠিক মাপের ব্রা পরিধান করুন, ব্রা টি হতে হবে নরম ও সুতির। বেশি টাইট ফিটিং ব্রা পরবেন না এতে আপনার স্তনের কোষ স্ফীত হয়ে যাবে। রাত্রে ব্রা পরে ঘুমাবেন না আর যদি সম্ভব হয় তাহলে বেশির ভাগ সময় কাপ সাইজের ব্রা পরুন।

৪) স্তন বড় করতে গ্লিসারিন বেশ ভালো কাজ দেয়। তাই হাতের তালুতে গ্লিসারিন নিয়ে দুই হাত ঘষে হাতের তালু গরম করুন এবং স্তনের উপর রাখুন। এতে আপনার স্তন পরিষ্কার ও মসৃণ হবে সেই সাথে স্তনের আকার বড় হতে থাকবে।

৫) বুক ডাউন বা ওয়াল ডাউন নামক ব্যয়াম টি নারী পুরুষের সবার জন্য অত্যান্ত কার্যকরী। প্রথম প্রথম এই ব্যয়াম টি করতে অনেক কষ্ট হবে তাই প্রথম দিকে ৫ থেকে ১০ টি বুক ডাউন বা ওয়াল ডাউন দেয়ার অভ্যাস তৈরী করুন। ১০ থেকে ১৫ দিন পরে থেকে একটু একটু করে ব্যয়াম টি বাড়িয়ে দিন। আপনার হাত, ঘাড়, পেট ও স্তনে প্রচুর রক্ত চাপ বাড়তে থাকবে। কিছুদিনের মধ্যে আপনি বুঝতে পারবেন যে আপনার স্তনের আকার বৃদ্ধি পাচ্ছে।

৬) আপনার স্তনের সাইজ যদি ৩২ থেকে শুরু হয় তাহলে স্তন বড় করার কোন প্রয়োজন নেই। তাছাড়া অনেকে স্তন বড় করার জন্য বিভিন্ন ধরনের ক্রীম বা অয়েন্টমেন্ট ব্যবহার করে থাকে এটা মোটেও ঠিক নয়। হয়তো কিছু দিনের জন্য আপনার স্তনের আকার বড় হবে কিন্তু পরবর্তীতে আপনার স্তনের ক্ষতি হবে।

৭) একটি সুস্থ্য নারীর জন্য সর্ব প্রথম প্রয়োজন সুষম খাবার। পরিমান মত সুষম খাবারে আপনি যা পাবেন তা অন্য কোন মেডিসিনে পাবেন না। তাই সব সময় চেষ্টা করুন সুষম খাবার খাওয়া। উল্লেখ্য থাকে যে, কাঠ বাদাম, চিনা বাদাম, ডাব, কলা, আমড়া, পেয়ারা এই ফল গুলো নারীর স্তনের জন্য অনেক উপকারী।

সর্বদা চেষ্টা করবেন প্রাকৃতিক ভাবে স্তনের আকার, সাইজ বৃদ্ধি করার। বাংলাদেশের অনেক নারীরা স্তন বড় করার ইনজেকশন নিয়ে থাকে। এটা পরবর্তীতে কত বড় ভয়ানক আকার ধারন করতে পারে তা আমরা কেউ জানি না। আপনি স্তন বড় করার ইনজেকশন নিয়ে থাকলে ১০০% আপনি ক্যান্সারে আক্রান্ত হবেন এটা নিশ্চিত।

বিঃদ্রঃ নিয়মিত পোষ্ট পেতে আমাদের ফেসবুক পেইজটি লাইক দিয়ে এবং এই পোষ্টটি আপনার ভালো লাগলে শেয়ার ও পোষ্টের নিচে আপনার মতামত দিয়ে সাথেই থাকুন।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here