হাত পা ঘামা থেকে মুক্তির উপায়

0
904
হাত-পা ঘামা
হাত-পা ঘামা

অনেকেই আছে এমন যে লিখতে গেলে কিছুক্ষণ পর পরই হাত খুব ঘেমে যায়। তখন বার বার হাত মুছে নিতে হয়। এই সমস্যার কারণে শুধু লিখার সময়ই না, কারো সাথে হাত মিলাতে গেলেও লজ্জাজনক অস্বস্তিতে  পড়তে হয়। আবার অনেকের পা খুব ঘামে। মোজা পড়লেও অস্বস্তি হয় আবার মোজা না পড়লেও পা ঘামানোর কারণে পছন্দের জুতা পরতে পারেন না। পা পিচ্ছিল হয়ে যায় এবং দূর্গন্ধ হয় খুব। এইসব কারণ আপনাকে পরিচিত বা বন্ধু সমাজে একা করে ফেলবে। হাত পা ঘামার সমস্যা যেমন আছে তেমনি কিছু সমাধানও আছে। চলুন জেনে নেয়া যাক।

কারণ খুঁজে বের করুন

কি কারণে আপনার হাত পা ঘামছে সে কারণটি খুঁজে বের করতে হবে। কারন সনাক্ত করতে পারলে সমস্যা দূর করা সহজ হয়ে যায়। হাত পা ঘামতে পারে দুশ্চিন্তা, পারিবারিক অশান্তি, অতিরিক্ত ঝাল বা মশলাযুক্ত খাবার, হরমোনজনিত সমস্যা অথবা হাতে পায়ে পলিস্টারের মোজা অনেক সময় ধরে পরে থাকার কারনেও আপনার হাত পা ঘামতে পারে।

অ্যান্টি পারস্পিরেন্ট

ফার্মেসি বা কসমেটিকের দোকানগুলোতে আপনি কিছু অ্যান্টি পারস্পিরেন্ট পাওয়া যায় যাতে লো ডোজে অ্যালুমিনিয়াম থাকে। এইসব অ্যান্টিপারস্পিরেন্ট ব্যাবহার করেও এই ধরণের সমস্যা থেকে সাময়িকভাবে পরিত্রাণ পাওয়া যায়।

প্রেসক্রিপশন মেডিসিন

হাইপারহাইড্রোসিসের সমস্যা হলে ডাক্তারের সাথে যোগাযোগ করুন। তারপর ডাক্তার যেমন ওষুধ দিবে সেসব সময়মতো গ্রহণ করতে হবে।

পানিতে বার বার হাত ধুয়ে নিন

পানির কলের নিচে কিছুক্ষণ ধরে হাত ধুলে ঘাম গ্রন্থি কিছুক্ষণের জন্য বন্ধ হয়ে যাবে। এভাবে সাময়িকভাবে কিছুক্ষণের জন্য ঘামানো বন্ধ করা যাবে। এই পদ্ধতিতে আয়নটোফোরেসিস বলে। এটি মেশিনের সাহায্যেও করা যায়।

বোটক্স ট্রিটমেন্ট

এই পদ্ধতি হচ্ছে এই ধরণের টক্সিনকে ক্ষতস্থানে পুশ করার মাধ্যমে ঘাম নিঃসরণ বন্ধ করে দেয়া যায়। এই পদ্ধতি অবশ্যই চিকিৎসকের পরামর্শ নিয়ে গ্রহন করবেন।

রেডিও ফ্রিকোয়েন্সী মাইক্রোনীডলিং

এই পদ্ধতির মাধমেও চিকিৎসা করা সম্ভব। বাংলাদেশেও বর্তমানে বেশ কিছু চিকিৎসা কেন্দ্রে এই পদ্ধতি ব্যবহৃত হচ্ছে। তবে অবশ্যই চিকিৎসকের পরামর্শ গ্রহন করতে হবে।

সার্জারি

এটা আসলে একটা ব্যয়বহুল চিকিৎসা। যদি কোন উপায়ই কাজ না করে তখন বাধ্য হয়ে সার্জারি করা হয়ে থাকে। এতে যে স্নায়ুর স্টিমুলেশনের কারণে ঘামের সৃষ্টি হয় সেটাই বাদ দিয়ে দেয়া হয়। হাইপারহাইড্রোসিসটাই তেমন কোন মারাত্বক রোগ নয়। হতে পারে এটা কোনো রোগের লক্ষণ বা উপসর্গ। তাই হাত পা ঘামা সমস্যা দেখা দিলে হেলা ফেলা না করে অতিসত্বর অভিজ্ঞ চিকিৎসকের সাথে যোগাযোগ করুন এবং চিকিৎসা গ্রহন করুন।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here